Nov 6, 2009

দুপুরের গল্প

তোমার তো অনেক জামা আছে
আমার মোটেই বেশি জামা নাই। অন্যদের আরও অনেক বেশি থাকে


এইটা তোমার কয় নাম্বার জামা?
চল্লিশ নাম্বার?

তুমি চল্লিশটা পাখির নাম পারো?
আমি একশোটা পাখির নাম পারি

আচ্ছা তুমি যদি চল্লিশটা পাখির নাম বলতে পারো, তাইলে এই ড্রেসটা আমি কিনে দিবো তোমাকে
চড়াই শালিক বুলবুলি টুনটুনি সুঁইচরা-- পাঁচ
মৌটুসি হামিংবার্ড বাতাসি দোয়েল ঘুঘু-- দশ
শঙ্খচিল ভুবনচিল জাঙ্গলব্যাবলার আরকিওপটেরিকস ময়না-- পনেরো
টিয়া ম্যাকাও মরাল সরালী পানকৌড়ি-- বিশ
শ্যামা ফিঙে ধনেশপাখি কাকাতুয়া ময়ুর-- পঁচিশ
বার্ডঅভপ্যারাডাইস মাছরাঙা কাঠঠোকরা বউকথাকও-- তিরিশ
ল্যাগ-ব্যাগার্নিস টার্কি ডোডো ফিঞ্চ লাভবার্ড-- পঁয়তিরিশ
হাঁড়িচাচা... কবুতর... মুরগি... কোয়েল...

আমার একটা পাখির নাম মনে পড়সে... বলে দিবো?
না না আমাকে বলতে দেও, আমি পারবো...
আর... ঈগল!

তুমি অ্যালবাট্রস বলসো?
না! কিন্তু চল্লিশটা পাখির নাম তো বলসি!

হ্যাঁ, শাফকাত ভালো টিচার।

2 comments:

mahmud faisal said...

হুমম...

এরকম শাফকাত থাকলে আসলেই দারুণ শিক্ষা হয়!
কী সুন্দর করে চল্লিশটা পাখির নাম বলা হয়ে গেলো! আমি না কখনও ভেবে দেখিনি এত্তোগুলো পাখির নাম পারি কিনা!

পড়ে মজা পেলাম অন্দ্রিলাপু!

অন্দ্রিলা said...

কেবুল পশুপক্ষীর নাম পার্লেই তো হবেনা, শাউটবক্সে দেখেন অতিথি লিক্সেন, প্রকৃতিমাতার আরও বেশি কঠিন এবং রঙগিন মাকড়শাহী জালে মধ্যে আটকা পইড়া পাখির মায়ের বাচ্চার গায়ের রঙ কতোগুলা সুতায় কতোভাবে জড়ায় গেসে, তা আমাদের বুস্তে হবে। ইজি থাকেন।